Thursday, April 22, 2021

শরীরকে হেলদি ফিট রোগমুক্ত ও সুস্থ সবল রাখার উপায়

আমরা সবাই নিজের জীবনের সবকিছু ফিটফাট রাখতে কত চেষ্টা করি কিন্তু নিজেকে ফিট রাখার জন্য তেমন কোনো চেষ্টা করিনা।

অনেকে আবার আছেন যারা নিজেকে ফিট রাখার জন্য অতি মাত্রায় চিন্তিত।

নিজেকে ফিট রাখতে হলে খুব বেশী কিছু করতে হবে ব্যাপারটা এমন নয় । আপনাকে শুধু কিছু নিয়ম ফলো করে যেতে হবে ।

ফিট থাকতে হলে আপনাকে প্রথমত ওজন কমাতে হবে।

জীবনযাত্রায় পরিবর্তন আনতে হবে।

খাবারের পরিমান ও ক্যালরির দিকে নজর দিতে হবে।

প্রতিদিন ব্যায়াম করুন

যারা একটু বেশী ব্যস্ত তারা নিয়মিত ব্যায়াম করার তেমন সময় বের করতে পারেন না ।

কিন্তু আপনি ইচ্ছা করলে কিছু পথ পায়ে হেটে অফিস থেকে বাসায় বা বাসা থেকে অফিসে যেতে পারেন।

ব্যায়াম করলে রক্ত চলাচলের হার বাড়ে এবং পুরো শরীরের সব কোষে অক্সিজেন পৌঁছে যায়

সাস্থসম্মত খাদ্যগ্রহন

আপনি যা খাচ্ছেন তা কতটুকু হেলদি বা সাস্থ্যসম্মত সেটা অনেক বেশী গুরুত্বপূর্ন।

কত বেশী খাচ্ছেন সেটা গুরুত্বপূর্ন নয়। খাবারের গুনগত মানই আসল ভূমিকা পালন করে।

শরীরে জমে থাকা বাড়তি মেদ ঝরাতে হবে এজন্য আপনাকে ক্যালোরি পোড়াতে হবে।

এভাবে শরীরকে একটা নিয়মে নিয়ে আসতে হবে।

ওজন কমানো

আপনি যে পরিমান ক্যালরি বৃদ্ধি করছেন সে পরিমান ক্যালরি কমিয়ে ফেলতে পারলেই  আপনার ওজন আর বাড়তে পারবেনা।

আর যদি ক্যালোরি আরেকটু বেশী ঝরাতে পারেন তাহলে ওজন কমতে শুরু করবে।

ওজন কমাতে আপনাকে জিমে যেতে হবে এমন নয় বরং আপনি নিজের কাজের ফাকে ফাকে একটু মেধা খাটিয়ে বাড়তি ওজন ও শরীর থেমে মেদ কমিয়ে ফেলতে পারেন।

নিজেকে ফিট রাখতে যে কাজগুলো অবশ্যই করতে হবে

প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে ওঠে হাটার অভ্যাস করুন। এতে হাত-পা চলাচলের পাশাপাশি সকালের মৃদু বাতাসও সেবন করতে পারবেন।

প্রতিদিন কিছুক্ষন দৌড়ানোর চেষ্টা করুন। হাই জাম্প দেয়ার চেষ্টা করুন। সেটা না পারলে দড়ি লাফ দিন।

সুজোগ ফেলে বাই সাইকেল চালানোর চেষ্টা করুন। শরীর থেকে ঘাম ঝরানোর চেষ্টা করুন।

অফিসে, বাড়িতে ,বাজারে লিফটে না উঠে সিঁড়ি দিয়ে উপরে উঠার অভ্যাস করুন।

বেশীক্ষন বসে থেকে কাজ করার অভ্যাস চ্যাগ করুন। কাজের ফাকে ফাকে হাটার অভ্যাস করুন।

শারীরিক পরিশ্রম হয় এমন কাজ করার চেষ্টা করুন। আরাম প্রিয়তা ত্যাগ করুন।

খাবার মেনু পরিবর্তন

প্রতিদিন একি রকম খাবার খাওয়া ত্যাগ করুন । খাবারের মধ্যে পরিবর্তন আনুন। সবজির পরিমান বাড়িয়ে দিন।

খাবারের তালিকায় প্রোটিন,মিনারেল, ও বিভিন্ন ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবার রাখার চেষ্টা করুন।

প্রোটিন শরীরে ওজন না বাড়িয়ে শক্তি সরবরাহ করে, যা কোষের জন্য খুবই উপকারী।

পুষ্টিকর খাদ্য গ্রহন

মানুষের মস্তিস্ক বিকাশের জন্য গ্লুকোজ ও শর্করা অতি প্রয়োজন ।

মিষ্টি আলু, তাজা ফল, রুটি, কাঠ বাডাম,মাছ, মাংস ইত্যাদিতে প্রয়োজনীয় শর্করা ও গ্লুকোজ থাকে।

প্রচুর পানি পান করুন

প্রতিদিন প্রচুর পরিমানে পানি পান করুন।পানি তৃষ্ণা মিটানোর পাশাপাশি শরীরের আদ্রতা ধরে রাখে।

শরীরের অভ্যন্তরীন পানির চাহিদা পূরনের সাথে সাথে পুরো শরীরকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

পানি আর্দ্রতার ঘাটতি মেটায় এবং শরীরে জমে থাকা টক্সিন দূর করে। ত্বক যত আর্দ্র থাকবে, তত স্থিতিস্থাপকতা বজায় থাকবে ।

তাই বয়স ধরে রাখতে ও শারীরিকভাবে ফিট থাকতে প্রচুর পরিমানে পানি পান করুন।

দুধ খাওয়া

প্রতিদিন দুধ খাওয়ার চেষ্টা করুন। দুধে ভিটামিন ও খনিজ পাওয়া যায়।দুধে ক্যালসিয়াম ও প্রোটিন থাকে। শরীরে পানির ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে।

ডিম খাওয়া

সাপ্তাহে ৩/৪ দিন ডিম খেতে পারেন। বয়স্কদের জন্য কুসুম ছাড়া ডিম খাওয়া ভালো।

খাদ্য তালিকায় শাকসবজি রাখা

খাবারের তালিকায় শাকসবজি রাখার চেষ্টা করুন। মটরশুটি ,শিম ,বরবটি সহ বিভিন আঁশযুক্ত সবজি এবং বিভিন্ন রকমের তাজা ফল খাওয়া জরুরি।

এতে বিভিন্ন রোগ থেকে যেমন ডায়বেটিস,হৃদরোগ, হাঁপানি ও আলার্জির ঝুঁকি থেকে রক্ষা পাবেন।

আমিশ জাতীয় খাদ্য গ্রহন

মাংশ বেশী খাওয়ার পরিবর্তে মাছ খাওয়ার পরিমান বাড়িয়ে দিন। প্রতিদিন খাবারের সাথে সালাদ রাখার চেষ্টা করুন।

পরিপূর্ন ঘুমানো

রাতে দ্রুত ঘুমানোর অভ্যাস করুন । কমপক্ষে ৭ ঘন্টা ঘুম পূর্ন করুন।

পরিবারের সাথে সময় কাটানো

পরিবারকে সময় দিন। তাদের সাথে মন খুলে হাসুন । ছেলে -মেয়ে দের সাথে অনন্দ করুন। হেসেই কেবল ১.৩ ক্যালোরি কমানো যায়।

চিন্তামুক্ত থাকা

দুঃচিন্তা মানুষকে দ্রুত মোটা বানিয়ে দেয় ও চেহারার মধ্যে বয়সের চাপ ফেলে দেয়। তাই চাপমুক্ত জীবনযাপন করুন।

মনকে ভালো রাখা

মনকে কখনও খারাপ হতে দিবেন না। মনের অবস্থার চাপ আপনার মুখের উপর পড়ে এবং তা সারা শরীরে প্রভাব বিস্তার করে।

তাই স্ট্রেস নিয়ন্ত্রন করুন এবং এমন কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়ুন যা করতে আপনার একান্ত ভালো লাগে।

ফিটনেস ধরে রাখার জন্য যে খাবার ও কাজগুলো বর্জন করতে হবে

চিনি ও চিনি জাতীয় খাবার ত্যাগ করুন। খালি পেটে মিষ্টি জাতীয় জিনিস খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।

চা পান করা কমাতে হবে

দুধ চা পান না করে রঙ চা গ্রীন টি খাওয়ার অভ্যাস করুন।

ফাস্টফূড ত্যাগ করতে হবে

বাহিরের রেডিমেট খাবার ,ফাস্টফূড খাওয়া মোটেও উচিত না এগুলতে অতি মাত্রায় ক্যালরি,চিনি,বিশাক্ত তৈল, ক্যামিকেল ও স্থুল হয়ে যাওয়ার উপাদান আছে যা সাস্থের জন্য মারাত্বক হুমকীস্বরূপ ।

এসব খাবার শিশুদের জন্য বিপজ্জনক। এগুলোতে হাঁপানি হওয়ার ঝুঁকি ৪০% বাড়িয়ে দেয়।

কোমল পানীয় ত্যাগ

কোমল পানীয় পান করার অভ্যাস ত্যাগ করুন। কোমল পানিতে সুগারের মাত্রা বেশী থাকে।

জাংক ফুড বাদ দিন

জাংক ফুড আপনার শরীরে অতিরিক্ত চর্বী জমা করবে। অল্প কয়েক দিনের মধ্যে আপনার চেহারায় বয়সের চাপ ফেলে দিবে।

 

 

Related Articles

প্রাকৃতিক উপায়ে হলদে দাঁতকে ঝকঝকে সাদা করার কিছু ঘরোয়া উপায়

একজন মানুষের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ সমূহের মধ্যে দাঁত অন্যতম। সুন্দর দাঁত মানেই সুন্দর হাসি ও আত্মবিশ্বাস। সুন্দর সাদা ঝকঝকা দাঁতের হাসি যেমন একজনের মন কেড়ে...

ঘর থেকে তেলাপোকা তাড়ানোর সহজ ঘরোয়া উপায় – দূর করবেন যেভাবে

তেলাপোকার অত্যাচার সহ্য করতে হয়নি এমন মানুষের সংখা খুব কমই আছে। সাধারনত অনেক দিন ধরে জমানো কোনো বস্তুর মধ্যে অথবা ঘরের বিভিন্ন কোনায় তেলাপোকা...

কম্পিউটার ও মোবাইলের ক্ষতিকর আলো থেকে চোখকে বাঁচাবেন যেভাবে

অফিসে বা বাড়িতে ছোট বড় সবাই কমবেশী মোবাইল বা কম্পিউটার ব্যবহার করছে ঘন্টার পর ঘন্টা ধরে। এখন সবারই চোখ থাকে কম্পিউটার বা মোবাইলের স্ক্রীনের দিকে।...

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Stay Connected

21,848FansLike
2,508FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles

প্রাকৃতিক উপায়ে হলদে দাঁতকে ঝকঝকে সাদা করার কিছু ঘরোয়া উপায়

একজন মানুষের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ সমূহের মধ্যে দাঁত অন্যতম। সুন্দর দাঁত মানেই সুন্দর হাসি ও আত্মবিশ্বাস। সুন্দর সাদা ঝকঝকা দাঁতের হাসি যেমন একজনের মন কেড়ে...

ঘর থেকে তেলাপোকা তাড়ানোর সহজ ঘরোয়া উপায় – দূর করবেন যেভাবে

তেলাপোকার অত্যাচার সহ্য করতে হয়নি এমন মানুষের সংখা খুব কমই আছে। সাধারনত অনেক দিন ধরে জমানো কোনো বস্তুর মধ্যে অথবা ঘরের বিভিন্ন কোনায় তেলাপোকা...

কম্পিউটার ও মোবাইলের ক্ষতিকর আলো থেকে চোখকে বাঁচাবেন যেভাবে

অফিসে বা বাড়িতে ছোট বড় সবাই কমবেশী মোবাইল বা কম্পিউটার ব্যবহার করছে ঘন্টার পর ঘন্টা ধরে। এখন সবারই চোখ থাকে কম্পিউটার বা মোবাইলের স্ক্রীনের দিকে।...

মধ্যবিত্ত সংসারের খরচ কমিয়ে অর্থ সঞ্চয়ের দারুণ উপায়

প্রতিদিন যে হারে চাহিদা ও খরচের পরিমান বাড়ছে । আয়ের সাথে ব্যয়ের কোনো মিল পাওয়া যায় না। দিন দিন জীবন কঠিন থেকে কঠিন হয়ে...

বাংলাদেশে বিয়ের নিয়ম কানুন বিয়ে করার আগে আইনগুলো জানুন

বিয়ের বয়স আইন ২০১৯ যারা বিয়ের কথা ভাবছেন, বিয়ে করার আগেই আইনগুলো জেনে নিন বিয়ে করার জন্য বর ও কনে পক্ষ উভয়ের জন্যই দেশের প্রচলিত আইন...